মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

                                              গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

                                           আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, ঠাকুরগাঁও।

                                                     www.dip.gov.bd

                                                       সিটিজেন চার্টার

                                      ‘‘পাসপোর্ট নাগরিক অধিকার, নিঃস্বার্থ সেবাই অঙ্গীকার’’)

আবেদনের প্রকৃতি

করনীয়

ফি(টাকা)

শ্রেণী

সময়সীমা

মন্তব্য

নতুন/১২ বছর উত্তীর্ণ পাসপোর্টের ক্ষেত্রে

মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের জন্য ০২ (দুই) কপি সত্যায়িত আবেদনপত্র (ডিআইপি ফরম-১) জমা দিতে হবে। আবেদনের সাথে

সত্যায়িত প্রয়োজনীয় সনদ জমা দিতে হবে যেমন-জাতীয় পরিচয়পত্র/ জন্মনিবন্ধন সনদ এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অন্যান্য সনদ/ কাগজপত্র।

৬৯০০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

যথাসময়ে অনুকুল পুলিশ প্রতিবেদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে। (সম্ভাব্য সময়)

অনুকুল পুলিশ প্রতিবেদন পাওয়া না গেলে পাসপোর্ট ইস্যূ হবে না।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

সাধারণ

(Regular)

যথাসময়ে অনুকুল পুলিশ প্রতিবেদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে ২১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে। (সম্ভাব্য সময়)

১০ বছর উত্তীর্ণ কিন্তু ১২ বছরের অধীক নয় এসব পাসপোটের্র ক্ষেত্রে

এক প্রস্থ আবেদনপত্র (ডিআইপি ফরম-১) জমা দিতে হবে। তবে ক্ষেত্রে বিশেষ তদন্তে প্রয়োজন হলে দুই কপি আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।

৬৯০০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

(Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

তবে ক্ষেত্র বিশেষ তদমেত্মর প্রয়োজন হলে দুই কপি আবেদনপত্র (ডিআইপি ফরম-১) জমা দিতে হবে এবং অনুকুল পুলিশ প্রতিবেদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে পাসপোর্ট ইস্যূ করা হবে।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

সাধারণ

(Regular)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ২১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

হারানো (MRP) এর বিপরীতে পাসপোর্ট প্রাপ্তির ক্ষেত্রে

জি.ডি.’র মূল কপিসহ (ডিআইপি ফরম-২,১) এক প্রস্থ আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।

৬৯০০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

(Loss Circular) জারী সাপেক্ষে) হারানো পাসপোর্টের বিপরীতে লস পাসপোর্ট ইস্যূ করা হবে। তবে ক্ষেত্র বিশেষ তদন্তে প্রয়োজন হলে কিংবা অন্য আরপিও/ দুতাবাস এর হলে অতিরিক্ত এক প্রস্থ আবেদনপত্র (ডিআইপি ফরম-১) জমা দিতে হবে।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

সাধারণ

(Regular)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ২১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

সরকারী কর্মকর্তা/ কর্মচারীরকে তাদের স্বামী/স্ত্রী সহ ১৫ বছরের কম বয়সের সমত্মান, স্থায়ী কর্মকর্তা/ কর্মচারীর ক্ষেত্রে।

মমত্মণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর প্রধানের নিকট হতে নির্ধারিত ফরমে এনওসি (NOC অফিসে পাওয়া যাবে) সহ এক প্রস্থ আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। উলেস্নখ্য যে এনওসি ইস্যূর পর মূল কপি পিয়ন বহি/ডাকযোগে অত্র কার্যালয়ে প্রেরণ করতে হবে। N.O.C ইস্যূকারী সংস্থা/প্রতিষ্ঠানের ওয়েব সাইডে N.O.C প্রদর্শিত হতে হবে এবং ইস্যূর তারিখ হতে ৬ মাস পর্যন্ত তা গ্রহনযোগ্য হবে। এনওসিতে অবশ্যই টেলিফোন নম্বর, ওয়েব এড্রেস এবং ই-মেইল এড্রেস ইত্যাদি উলেস্নখ থাকতে হবে।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

১। কর্মকর্তা/ কর্মচারীর জন্য এনওসি এর মূলকপি এবং সরকারী কর্মকর্তা/ কর্মচারীর স্বামী/স্ত্রী ও ১৫ বৎসরের কম বয়সী সন্তানদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট্র প্রতিষ্ঠান/ সংস্থার স্মারক নম্বর সম্বলিত পত্র/ প্রত্যয়নপত্র সহ আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।

২। সরকারী আদেশের জি.ও. এর প্রেক্ষেতে অফিসিয়াল পাসপোর্ট ইস্যূও ক্ষেত্রে ফি প্রযোজ্য নয়।

আধা সরকারী, সায়ত্বশাসিত ও রাষ্ট্রয়াত্ব সংস্থার.... কর্মকর্তা/ কর্মচারীর ক্ষেত্রে

N.O.C. ভিত্তিতে (ফি-সহ) সাধারণ পাসপোর্ট এবং G.O. ভিত্তিতে (বিনা-ফি’তে) জরুরী ভাবে সাধারণ পাসপোর্ট ইস্যু করা হবে।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

 

সরকারী আদেশের জি.ও. এর প্রেক্ষেতে সাধারণ পাসপোর্ট ইস্যূর ক্ষেত্রে ফি প্রযোজ্য নয়।

অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মকর্তা/ কর্মচারী ও তাদের স্বামী/স্ত্রীর ক্ষেত্রে

শুধুমাত্র অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীর পেনশন অর্ডার/ পেনশন বহির সত্যায়িত কপি সহ এক প্রস্থ আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। তাদের স্বামী/স্ত্রীর সংশিস্নষ্ট সংস্থা/ প্রতিষ্ঠানের স্মারক নম্বর সম্বলিত পত্র/প্রত্যায়নপত্র সংযুক্ত করতে হবে।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

 

সেনা/নৌ/ বিমান বাহিনীর কর্মকর্তা/ কর্মচারীদের ক্ষেত্রে

আর্মি ----সংস্থার সুপারিশ/ছাড়পত্র থাকতে হবে।

৩৪৫০/

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

 

রি-ইস্যূ পাসপোর্ট তথ্য পরিবর্তন/ সংশোধনের ক্ষেত্রে

(স্মারক নং-৫৮.০১.০০০০.২০২.৭৮.০০১.১৮-৯২৫ (১৩১) তারিখঃ ০৭ মার্চ, ২০১৮ খ্রিঃ এর অফিস আদেশ মোতাবেক  বর্তমানে রি-ইস্যূর ক্ষেত্রে পুরাতন এমআরপি তথ্য পরিবর্তন গ্রহণযোগ্য নয়) 

০১ (এক) কপি তথা পরিবর্তন/সংশোধন আবেদনপত্রে (ডিআইপি ফরম-১) আবেদন করতে হবে। পরিবর্তিত তথ্যের স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় দলিলাদি যেমন- জাতীয় পরিচয়পত্র/ জন্মনিবন্ধন সনদের সত্যায়িত কপি, প্রয়োজ্য ক্ষেত্রে বোর্ডের সনদ/ হলফনামা ইত্যাদি) কপি জমা দিতে হবে।

৬৯০০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

১। তথ্যাদি পূর্ববর্তী রেকর্ড যাচাই পূর্বক সঠিক হতে হবে।

২। তবে ক্ষেত্র বিশেষ তদন্তের প্রয়োজন হলে ০২ কপি আবেদনপত্র (ডিআইপি ফরম-১) জমা দিতে হবে এবং তদন্তে রিপোর্ট অনুকুলে প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে পাসপোর্ট ইস্যূ করা হবে।

৩৪৫০/

ভ্যাটসহ

সাধারণ

(Regular)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ২১ কর্ম দিবসের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

রি-ইস্যূ পাসপোর্ট হারানো গেলে/ ব্যবহার অনুপযোগী হলে/মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে

০১(এক) কপি তথ্য পরিবর্তন/ সংশোধন আবেদনপত্রে (ডিআইপি ফরম-১) আবেদন করতে হবে, পরিবর্তিত তথ্যের স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় দলিলাদির যেমন-জাতীয় পরিচয়পত্র/ জন্মনিবন্ধন সনদের সত্যায়িত কপি, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে বোর্ডের সনদ/ হলফনামা ইত্যাদি) কপি জমা দিতে হবে।

৬৯০০/-

ভ্যাটসহ

জরুরী

 (Express)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ১১ দিনের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

১। হারানো পাসপোর্টের ক্ষেত্রে পূর্ববর্তী কোন তথ্যের পরিবর্তন করা যাবে না।

২। দাখিলকৃত যে কোন সনদের মূলকপি কর্তৃপক্ষ দেখতে চাইলে তা দেখাতে হবে এবং পূর্ববর্তী রেকর্ডের সঙ্গে যাচাই পূর্বক সঠিক হতে হবে।

৩। তবে ক্ষেত্র বিশেষে তদন্তে প্রয়োজন হলে ০২ কপি আবেদনপত্র (ডিআইপি ফরম-১) জমা দিতে হবে এবং তদমত্ম রিপোর্ট অনুকুলে প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে পাসপোর্ট ইস্যূ করা হবে।

৩৪৫০/-

ভ্যাটসহ

সাধারণ

(Regular)

আবেদনপত্র জমা হওয়ার ২১ দিনের মধ্যে পাসপোর্ট পাওয়া যাবে (সম্ভাব্য সময়)

 

সম্মানিত আবেদনকারীদের জ্ঞাতাথে

১।     পাসপোর্টের আবেদন ফরম জমা দিতে ব্যাংক নির্ধারিত ফি (জরুরী- ৬৯০০ ও সাধারণ- ৩৪৫০) ছাড়া অন্য কোনো টাকা লাগে না। সুতরাং দালাল, প্রতারক, অপরিচিত ও অবাঞ্চিত কোন ব্যাক্তিকে কোন প্রকার টাকা পয়সা না দেওয়ার জন্য আপনাকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হল।

২।      পাসপোর্ট ফি অনলাইন ব্যাংক (এশিয়া ব্যাংক/প্রিমিয়ার ব্যাংক/ওয়ান ব্যাংক/ ট্রাস্ট ব্যাংক/ঢাকা ব্যাংক) এর যে কোন শাখায় এবং সোনালী ব্যাংক ঠাকুরগঁাও প্রধান শাখায় জমা দেয়া যাবে।

৩।     আবেদন পত্রের সাথে দাখিলকৃত সনদের (যেমন- জন্মনিবন্ধন সনদ/জাতীয় পরিচয়পত্র/পিএসসি/জেএসসি/এসএসসি হলফনামা) সঠিকতা যাচাইয়ের বিকল্প এড়াতে মুল কপি নিয়ে আসুন।

৪।     জন্ম নিবন্ধন সনদ অবশ্যই ডিজিটাল অর্থাৎ অনলাইনে থাকতে হবে।

৫।     পূর্ববর্তী পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে মুল জিডি কপি (থানা কর্মকর্তার স্বাক্ষর সীল মোহর, অফিসের মোবাইল/ফোন নম্বর থাকতে হবে) দাখিল করতে হবে।

৬।     অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারী ও তাদের স্বামী/স্ত্রীর ক্ষেত্রে পেনশন অর্ডার কিংবা পেনশন বহির ফটোকপি সংযুক্ত করতে হবে।

৭।      রাজস্ব খাতভুক্ত সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের ১৫ (পনের) বছরের কম বয়সী সমত্মানদের ক্ষেত্রে সংশিস্নষ্ট প্রতিষ্ঠানের স্মারক নম্বর সম্বলিত পত্র সংযুক্ত করতে হবে।

৮।    আবেদন দাখিলের পূর্বে ফরম সঠিকভাবে পূরণ করা হয়েছে কিনা নিজেই যাচাই করে নিন।

৯।     সঠিক তথ্য দিন, নির্বিঘ্নে পাসপোর্ট গ্রহণ করুন।

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :
Facebook Twitter